Breaking News

সিলেটে ডাক্তারের অবহেলায় তরুনীর মৃত্যু-হাতজোড় করে ক্ষমা চাইলেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ,

সিলেটে ডাক্তারের অবহেলায় তরুনীর মৃত্যু। হাতজোড় করে ক্ষমা চাইলেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ডাক্তারের অবহেলায় সিলেট পার্কভিউ হাসপাতালে তরুনীর মৃ’ত্যু হয়েছে। জানা যায় রোববার বিকেল ৩টা পার্কভিউ হাসপাতালে বার বার কল করে একজন ইন্টারনি ডিউটি ডাক্তারকে পাওয়া যায়নি।

আদরের বোন নূরীর বয়স ২৪ বছর তালু জিহবা একসঙ্গে লেগে গেছে। শুরু হয়েছে প্রচন্ড শ্বাসকষ্ট। ঘড়ঘড় শব্দ হচ্ছে। বড় বোন ও ছোট ভাই ছুটলেন নার্স সিস্টারের কাছে। ডাক্তারকে বারবার ফোন করছেন সিস্টার। ‘ডাক্তার আসবেন’ জানালেন সিস্টার। একঘন্টা, দুইঘন্টা যায়, ডাক্তার আসেন না।

বোনের অবর্ণনীয় কষ্ট দেখে বড় বোন ও ছোট ভাই দিশেহারা। হন্যে হয়ে খুঁজছেন ডাক্তারকে। অপেক্ষার পর ডাক্তার আসলেন মাগরিবের পর। ততক্ষনে সব শেষ। নূরী নামের উচ্ছল তরুনী পাড়ি জমিয়েছে না ফেরার দেশে। হাউমাউ করে কাঁদছেন মা, বোন, ভাই স্বজনেরা। আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করা ছাড়া আর কী করার আছে তাদের?

নূরীদের নাম ঠিকানা বলে আর কী লাভ। তারপরও সংক্ষেপেই বলি ‘নূরীদের বাড়ি দক্ষিণ সুরমার সিলামের চান্দাই গ্রামে। আহারে!! মাত্র ১৬ দিন আগে নূরীর বাবাও পরপারে পাড়ি জমিয়েছেন! অভিভাবকেরা জানান দায়িত্বরত দুই নার্সের সহযোগিতায় আমরা সন্তুষ্ট দায়িত্বরত ডিউটি ডাক্তার মৌসুমি দেব রায়ের অবহেলা/ গাফিলতির কারনে আমাদের রোগীর মৃত্যু হয়।

মাগরিবের পর রোগীর মৃত্যু হবার পর টেনে নিয়ে আইসিউতে ডুকিয়ে ১৫ মিনিট পর আমাদের জানায় রোগীর মৃত্যু হয়েছে। অভিবাবকরা বলেন আমরা চাইনা আমাদের মত অন্য কেউ এমন পরিস্থিতির স্বীকার হোক। পার্ক ভিউ হাসপাতাল তারা উন্নত চিকিৎসার নামে মানুষের সাথে প্রতারনা করছে। নামে আর কথায় তারা উন্নত ভিতরে আসলে মানে তাদের সেবা নিতে আসলে দেখা যায় তারা কি করে। ইন্টার্নি ডাক্তারকে কয়েক ঘণ্টা ফোন দিয়ে ও একবার আনা যায়নি । হন্য হয়ে ডাক্তার খুজে পাইনি।ভিডিও দেখুন বিস্তারিত ভিডিওতে এখানে ক্লিক করুন

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *