সবার প্রশ্ন- সুশান্তের মৃ’ত্যু’র পর এরকম ভাবে নাচতে পারেন তিনি? লাস্যময়ী নাচে ভাইরাল অঙ্কিতা

১৪ জুন, এক ভ’য়াবহ রবিবার, মুহূর্তে ঝড় তুলেছিল সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যু’র খবর। আর সেই খবরেই নাকি মাথা ঘুরে পড়ে গিয়েছিলেন অঙ্কিতা লোখান্ডে। প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে এক কথায় ছয় গোল দিয়ে নিজেই জায়গা করে নিয়েছিলেন সকলের মনে।

সাদা পোশাক থেকে শুরু করে অবসাদ, পরিবারের পাশে দাঁড়ানো থেকে শুরু করে শো’কসভায় হাজিরা, সব দ্বায়িত্ব পালন করেছিলেন তিনি। কিন্তু কয়েকমাসেই সব ফিকে হয়ে গেল!

এমনটাই প্রশ্ন তুলল এবার নে’টবাসী। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় অঙ্কিতা লোখান্ডে। মাঝে মধ্যেই তাঁর পোস্ট সকলের নজর কাড়ে। কিন্তু কোথাও গিয়ে যেন চেনা লুক বদলে গিয়েছিল শেষ কয়েক মাসে।

নিজেকে দাবী করেছিলেন তিনি সুশান্তের বি’ধবা বলেও। দাবী তুলেছিলেন ন্যায় বিচারের। জা’স্টিস ফর সুশান্ত মু’ভমে’ন্টে সামিল হয়েছিলেন তিনি। প্রতিটা পদক্ষেপে গলা তুলেছিলেন এর শেষ দেখে ছাড়বেন।

কিন্তু কোথায় অবসাদ। উৎসবের মরশুমে হট লুকে ভাইরাল হয়ে উঠল অঙ্কিতার নাচ। লুটেরা ছবির গানে উ’ষ্ণতা ছড়ালেন তিনি। আর এই পোস্ট প্রকাশ্যে আসতেই তা নজর কাড়ে নেটবাসী।

কিছুদিন আগেই অভিনেত্রী অঙ্কিতা লোখান্ডে নবরাত্রি স্পেশাল ছবি পোস্ট করেন নিজের ইন্সটাগ্রাম পেজে। মারাঠি কনে হিসেবে সেজেছেন পবিত্র রিস্তার অভিনেত্রী অঙ্কিতা।

এই মারাঠি কনের অবতারে কিছু ছবি এবং ভিডিও পোস্ট করে লেখেন, তিনি মারাঠি খাওয়া দাওয়া, মারাঠি উৎসব এবং মারাঠি কনের সাজ খুব ভালোবাসেন। সকল অনুরাগীদের নবরাত্রির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এসব দেখে প্রকাশ্যেই সকলে প্রশ্ন করে বসেন, তবে কী সুশান্ত বিচার পেয়ে গিয়েছেন! এত তাড়াতাড়ি কীভাবে সবটা ভুলে যাওয়া সম্ভব! এমনই একাধিক মন্তব্যে ভরতে থাকে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতা।

অভিনেত্রীর এই লা’স্য’পূ্র্ণ নাচ একেবারেই মন গাঁথেনি নে’টিজেনদের৷ সুশান্ত ভক্তরা নানান কমেন্টে ভরিয়ে দিয়েছে। তাঁদের সাফ প্রশ্ন কী করে সুশান্তের মৃ’ত্যু’র পর এরকমভাবে নাচতে পারেন তিনি৷

একজন বলেলেন, অঙ্কিতাকে আর পাঁচজনের থেকে আলাদা ভেবেছিলাম , আদপে তিনি মোটেই তা নন৷ এই নাচের ভিডিয়ো পছন্দ না হওয়ার জন্য অনেকেই সমালোচনা করে ভিডিওটিকে তারা ভাইরাল করে দিয়েছেন৷

এক ভক্ত লিখেছেন, “সাত বছরের প্রেম ভুলে যাওয়া কি এতই সহজ”। ইতিমধ্যেই এই ভিডিওটিতে প্রায় ৪ লাখ ভিউজ সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে।

ভিডিওঃ

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *