ভিডিওর মাধ্যমে মহেশ ভাটের সকল অপকর্ম ফাঁস করলো মহেশ ভাটের বৌমা (ভিডিও সহ)

এবার খাস পরিবারের সদস‍্যই অভিযোগের আঙুল তুললেন পরিচালক মহেশ ভাটের দিকে। পরিচালকের সব জারিজুরি ফাঁস করে দিলেন তাঁর নিজের ভাগ্নে বৌ অর্থাৎ সম্পর্কে বৌমা, লুভিয়েনা লোধ।

নিজের বাড়ি থেকে তাঁকে উৎখাত করতে চাইছেন মামাশ্বশুর মহেশ ভাট। এমনই বিষ্ফোরক অভিযোগ করেছেন লুভিয়েনা।

মহেশের বোনপো সুমিত সাভারওয়ালের স্ত্রী হলেন লুভিয়েনা। পেশায় অভিনেত্রী তিনি। সম্প্রতি নিজের ইনস্টা হ‍্যান্ডেলে একটি ভিডিও শেয়ার করেন লুভিয়েনা।

সেই ভিডিওতেই তিনি অভিযোগ করেন মহেশ ভাট তাঁকে তাঁর বাড়িছাড়া করতে চাইছেন। পরিচালকের বিরুদ্ধে তিনি মামলাও দায়ের করেছেন বলে জানান অভিনেত্রী।

ভিডিওতে বেশ কিছু চাঞ্চল‍্যকর তথ‍্য ফাঁস করেন লুভিয়েনা। তিনি বলেন,

“মহেশ ভাটের বোনপো সুমিত সাভারওয়ালের স্ত্রী আমি। কিন্তু আমি বিচ্ছেদের মামলা দায়ের করেছি। কারণ আমি জানতে পেরেছি স্বপ্না পাব্বি, আমাইরা দস্তুরের মতো অভিনেত্রীদের মা’দ’ক পাচার করে ও। মহেশ ভাটও বিষয়টা জানেন।”

মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে কড়া তোপ দেগে তিনি আরো বলেন,

“ইন্ডাস্ট্রির সবথেকে বড় ডন মহেশ ভাট। উনিই পুরো সিস্টেমটাকে চালান। ওঁর নিয়ম মতো না চললে তার জীবন নরকে পরিণত করে দেন উনি।

বহু মানুষের কাজ ছিনিয়ে নিয়ে তাদের জীবন নষ্ট করে দিয়েছেন উনি। ওঁর একটা ফোন কলে মানুষের কাজ চলে যায়। যেদিন থেকে আমি ওঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছি, উনি আমার বাড়িতে ঢুকে আমাকে বাড়িছাড়া করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

কেউ আমার অভিযোগও নিতে চাইছিল না। যাও বা অভিযোগ দায়ের করা হল কোনো ব‍্যবস্থা এখনো নেওয়া হয়নি।”

নিজের ও পরিবারের সুরক্ষার জন‍্যই এই ভিডিও করেছেন বলে জানান লুভিয়েনা। তিনি আরো দাবি করেন,

“যদি আমার বা আমার পরিবারের সঙ্গে কিছু হয় তাহলে মহেশ ভাট, মুকেশ ভাট, সুমিত সাভারওয়াল, সাহিল সেহগল ও কুমকুম সেহগল এরাই দায়ী থাকবেন।

মানুষের জানা উচিত বন্ধ দরজার পেছনে এই মানুষগুলো কি কি করতে পারেন, কারণ মহেশ ভাট অত‍্যন্ত প্রভাবশালী মানুষ।”

ভিডিওটি পোস্ট করতেই মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। নেটিজেনরা ফের আক্রমণ হেনেছেন মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে। প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে ‘কাজরারে’ ছবির মাধ‍্যমে বলিউডে ডেবিউ করেন লুভিয়েনা লোধ। তাঁর বিপরীতে ছিলেন হিমেশ রেশমিয়া।

ভিডিওঃ

https://www.instagram.com/tv/CGrlL-ZjLOz/?utm_source=ig_embed

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *