হেয়ার ড্রায়ারে ক্ষতি, চুল শুকিয়ে নিন তোয়ালে দিয়ে

ঝটপট চুল শুকাতে হেয়ার ড্রায়ারের যেন কোনো বিকল্প নেই! তবে এতে যে চুলের কতটা ক্ষতি হচ্ছি তা আমরা অনেকেই টের পাই না। এভাবে চুল শুকালে নাকি চুল পড়ে যেতে পারে বেশি।
অন্যদিকে তোয়ালে দিয়ে চুল মুছে নিলে কিন্তু কোনোভাবেই ক্ষতিগ্রস্থ হবে না চুল। তবে তার জন্য জানতে হবে উপযুক্ত টেকনিক।

টাওয়েল ড্রাই কেন ভালো?

ব্লো ড্রাই বা ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকিয়ে নেয়ার থেকে টাওয়েল দিয়ে চুল শুকিয়ে নেয়া অনেক ভালো। আমাদের চুল কিন্তু কোনো হিট নেয়ার জন্য তৈরি হয়নি। তবে তাড়াতাড়ি চুল শুকিয়ে নেয়ার জন্য আমরা ড্রায়ার ব্যবহার করি।

এই হিটে চুলের অনেক ক্ষতি হয়। চুলের ময়েশ্চার চলে যায় ড্রায়ারের এই হিটে। ফলে চুল হয় রুক্ষ। অনেক সহজেই চুল পড়ে যেতে থাকে। তাই সময় একটু বেশি লাগলেও তোয়ালে দিয়েই চুল মুছে শুকিয়ে নেয়া সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ।

চুল শুকাতে যেভাবে ব্যবহার করতে তোয়ালে

চুল মোছার জন্য তোয়ালে হবে সবসময় ছোট। বড় তোয়ালে আপনার সব চুল একেবারে ঢেকে নিতে পারে ঠিকই। তবে বড় তোয়ালের ভারও তো চুলের থেকে বেশি। তাই বড় তোয়ালে দিয়ে চুল মুছলে চুল বেশি পড়বে। ছোট তোয়ালে নিন। অল্প অল্প করে চুলের খানিক খানিক অংশ মুছুন। এতে চুল ভালো থাকবে।

তোয়ালে দিয়ে চুল জোরে জোরে ঘষে মুছলেও চুল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। প্রথম কথা হলো, একদম ভিজে চুল কখনই তোয়ালে দিয়ে মোছা ঠিক নয়। ভিজে অবস্থায় চুলের গোঁড়া নরম থাকে। তাই এই সময়ে মুছলে চুল বেশি পড়তে পারে।

মাথার চুল শুকিয়ে নেয়ার জন্য গোসলের পর প্রথমেই অতিরিক্ত পানি হাত দিয়ে চিপে ঝরিয়ে নিন। তারপর চুল ঘিরে দিন নরম টারবি টুইস্ট টাওয়েল দিয়ে। খানিক পর দেখবেন আপনার চুল বেশ শুকিয়ে গেছে। আর এতে চুল বেশ ফুরফুরেও থাকে।

প্রথমে টাওয়েলের একটা অংশ দিয়ে চুল মুছে নিন। এবার চুলের বাকি ভিজে অংশ টাওয়েলের বাকি শুকনো অংশ দিয়ে মুছে নিন। এভাবে টাওয়েল ব্যবহার করলে চুল বেশ ভালোভাবে শুকিয়ে যাবে আর চুলের ক্ষতিও হবে না।

টাওয়েল ছোট না বড় সেটা যেমন গুরুত্বপূর্ণ, তেমনই টাওয়েল কি দিয়ে তৈরি সেটাও কিন্তু সমান গুরুত্ব রাখে। মাইক্রো ফাইবার টাওয়েল সবচেয়ে ভালো চুলের জন্য। এই ফাইবার চুলের থেকে সব ময়েশ্চার অতি সহজেই শুকিয়ে নেয়।

টাওয়েল দিয়ে চুল কখনই ঘষা ঠিক নয়। চুল টাওয়েল দিয়ে মুছতে হলে সব সময়ে প্রেস করবেন আস্তে আস্তে। এভাবে টাওয়েল দিয়ে চুল মুছলে চুলের আর টাওয়ালের ঘর্ষণ কম হয়। চুল ভালো থাকে।

টাওয়েল দিয়ে চুল মোছার আগে এটা নিশ্চিত করুন যে আপনার চুল কন্ডিশনড হয়ে আছে। ভালো কন্ডিশনার বা সিরাম ব্যবহার করে আগে চুলের কিউটিকল নরম করে নিন। এর পর টাওয়েল ব্যবহার করুন।

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *