জেনে নিন অতিরিক্ত সাবান ব্যবহারের কুফল !

আমদের মাঝে অনেকে আছেন যারা প্রয়োজনের তুলনায় অতি রিক্ত সাবান ব্যবহার করেন।তাদের রয়েছে মারাত্মক ঝুকি।সাবানের বেশি ব্যবহার শরীরের জন্য ডেকে আনতে পারে ভয় ঙ্কর বিপদ।

ক্যান্সারের সম্ভাবনাঃ সাবান, শ্যাম্পু, টুথ পেস্টের মধ্যে উপস্থিত যৌগ ট্রাইক্লোস্যান লিভার ফাইব্রোসিস ও লিভার ক্যান্সারের অন্যতম কারণ রূপে কাজ করে। সম্প্রতি এক গবেষণায় প্রকাশ পেয়েছে চমকে দেওয়া এই তথ্য। দীর্ঘদিন ধরে বেশি পরিমাণে সাবান, শ্যাম্পু ব্যবহার করলে এই জিনিসগুলির অন্যতম সাধারণ অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ট্রাইক্লোস্যান উপকারের বদলে অপকার করতে শুরু করে। লিভারের টক্সিসিটি বাড়িয়ে তোলে।

ট্রাই ক্লোস্যান যখন একই কার্যক্ষমতা সম্পন্ন অনান্য যৌগের সঙ্গে মিশে থাকে তখন ক্ষতির সম্ভাবনা আরও বেড়ে যায়। ট্রাই ক্লোস্যান লিভারের মধ্যে অবস্থিত অ্যান্ড্রোস্টেন রিসেপটর গুলিকে নষ্ট করে ফেলে। এই রিসেপটরগুলি আসলে এক ধরণের প্রোটিন যা শরীরে ফরেন পার্টিকাল তাড়াতে সাহায্য করে। এর ফলে লিভার কোষ গুলির অনিয়মিত বিভাজন শুরু হয়। কোষ গুলি ফাইব্রোটিক হয়ে পড়ে। লিভারে লাগাতার ফাইব্রোসিস টিউমার তৈরি করে।

ব্যাকটেরিয়া নিধনের কার্যকরী ক্ষমতা হ্রাসঃ অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল জেল বিশ্ব ব্যাপী ব্যাপক ব্যবহারের ফলে ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশনগুলোর চিকিৎসা করা এখন অনেক ক্ষেত্রেই কঠিন হয়ে পড়ছে। কারণ জীবাণুগুলো ওষুধ প্রতিরোধের ক্ষমতা তৈরি করে ফেলছে। অর্থাৎ এই ধরনের সাবানগুলো অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে ব্যাকটেরিয়া নিধনের ওষুধ বা সাবানগুলোর কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।জীবাণুগুলো নিজেদের মধ্যে শক্তি বাড়িয়ে ওষুধের কার্যক্ষমতাকে নষ্ট করে দিচ্ছে। এর ফলে এগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়ছে।

ত্বকের ক্ষতিঃ অতি রিক্ত সাবান ব্যবহারের কুফল পড়ে ত্বকেও। অতি রিক্ত সাবান ব্যবহারে আপনার ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। আর শুষ্কতার পরিমাণ বেড়ে গেলে ত্বকে সৃষ্টি হয় নানা সমস্যা। এই সময় শরীরে সৌন্দর্যহানি ঘটে ব্যাপক ভাবে। ফলে দেখা দিতে পারে বিভিন্ন ধরনের চর্মরোগ। এমনকি স্কিন ক্যান্সারও হতে পারে।

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *