চকলেট কি স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী?

চকলেট কে না পছন্দ করেন? শিশু থেকে বুড়ো কে নেই এই তালিকায়। যদিও দাঁতের ক্ষয় কিংবা ডায়াবেটিসের ভয়ে ইচ্ছা থাকলেও অনেকেই চকলেট খান না। কিন্তু সব চকলেট শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয় তা হয়ত জানেন না অনেকেই।

চিকিৎসকদের মতে, বাজারে মূলত ২ ধরনের চকলেট বেশি পাওয়া যায়। ডার্ক চকলেট এবং মিল্ক চকলেট। ডার্ক চকলেট স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। চকলেটের মূল উপাদান হলো কোকোয়া যা খাদ্যগুণে ভরপুর। কিন্তু এগুলো একই প্রক্রিয়ায় বানানো হয় না।

মিল্ক চকলেটের তুলনায় ডার্ক চকলেটে কোকোয়ার পরিমাণ থাকে ৭০ ভাগ বেশি। মিল্ক চকলেট বানানো হয় দুধ এবং চিনি দিয়ে। যা দাঁতের ক্ষতি করে এবং রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি করে। কিন্তু ডার্ক চকলেটে কোকোয়ার পরিমাণ যতো বেশি থাকবে সেটি স্বাস্থ্যের জন্য বেশি উপকারী হবে।

চলুন জেনে নেই ডার্ক চকলেট আমাদের কি কি উপকারে আসে —

• হার্ট ভালো রাখে: যারা নিয়মিত পরিমাণে ডার্ক চকলেট খায় তাদের হার্টের রোগ হওয়ার ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় কম থাকে। ডার্ক চকলেটের রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রাখে এবং হার্ট সুস্থ রাখে।

• স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়: এটি উচ্চ রক্তচাপ স্বাভাবিক করে এবং হৃদ্‌যন্ত্রের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমায়। এ ছাড়া চকলেট রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে এবং মানসিক চাপ কমায়। ডার্ক চকলেট স্ট্রোকের ঝুঁকি ২০ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে আনে।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে: কোকোয়া রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে আনে এবং ইনসুলিন লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখে।

• ত্বক সুন্দর রাখে: ত্বককে রোদের তাপ থেকে রক্ষা করে ডার্ক চকলেট।

• মেধা শক্তি বৃদ্ধি করে: স্মৃতি শক্তি ধরে রাখার জন্য ডার্ক চকলেটের তুলনা হয় না। যারা নিয়মিত ডার্ক চকলেট খায় তারা অন্যদের তুলনায় বেশি মেধাবী ও বুদ্ধি সম্পন্ন হয়।

• কোলেস্টেরল কমায়: আমাদের শরীরে ২ ধরনের কোলেস্টেরল থাকে। ভালো কোলেস্টেরল এবং খারাপ কোলেস্টেরল। ডার্ক চকলেটের তেতো স্বাদ আমাদের শরীর থেকে খারাপ কোলেস্টেরল দূর করে ভালো কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়ায়।

• প্রসূতি মা ও সন্তানের উপকারে আসে: গর্ভকালীন সময়ে প্রসূতি মায়েদের মানসিক চাপ দূর করে চকলেট।

• ওজন কমায়: যারা চকলেট খায় তারা অন্যদের তুলনায় সুঠাম ও সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হয়।

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *