ডায়াবেটিস থেকে লিউকেমিয়া রোগ প্রতিরোধে নয়নতারা

সারা বছর বাগান আলো করে রাখার মত একটা ফুল নয়নতারা। যে কোন জায়গায় বিনা যত্নে এরা বেঁচে থাকে ফুল ফোটায়, বেঁচেও থাকে অনেক দিন। একই গাছে অনেক ফুল ফোটে, যা দেখতে সত্যিই অতি মনো মুগ্ধকর।

গাছটির পাতা, ফুল ও ডালে বহু মূল্য বান রাসায়নিক উপাদান পাওয়া যায়। ৭০ টিরও বেশি উপক্ষার পাওয়া যায় এ গাছ থেকে। ভিনক্রিস্টিন ও ভিন ব্লাস্টিন নামের উপক্ষার দুটি লিউকেমিয়া রোগে বিশেষ ব্যবহার রয়েছে। ডেলটা ইহোহিম্বিন নামের এক প্রকার রাসায়নিক পদার্থ পাওয়া যায় কৃমি রোগে, মেধাবৃদ্ধিতে, লিউকোমিয়া, মধুমেহ, রক্তচাপ বৃদ্ধিতে, সন্ধিবাত, বহুমূত্র সহ নানা রোগে এর ব্যবহার রয়েছে। বোলতা প্রভৃতির হুলের জ্বালায়/কীট দংশনে দ্রুত উপশম পেতে নয়নতারা ফুল বা পাতার রস ব্যবহারের প্রচলন লক্ষ্য করা যায়।

হৃদ রোগের ঝুঁকি কমায় (Improves Heart Health) –
নয়ন তারায় থাকে রেসারপিন নামক একটি উপাদান, যা হার্টকে সুরক্ষা প্রদান করে। এর নিয়মিত ব্যবহার হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে থাকে (Controls Blood Pressure) –
নয়ন তারা গাছের দশটা পাতা নিয়ে ভাল করে বেটে নিন। এই রস নিয়মিত সকালে অথবা রাতে পান করলে রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণ হয়।

লিউকেমিয়া (Leukemia) প্রতিরোধে সহায়ক –
আয়ুর্বেদীয় শাস্ত্র মতে নয়নতারায় রয়েছে এমন কিছু ভেষজ উপাদান, যার ব্যবহার লিউ কেমিয়ার মত মারণ ব্যাধি প্রতিহত করতে সাহায্য করে।

মধু মেহ রোগ নিয়ন্ত্রণ করে –
ডায়াবিটিস রোগ সারাতে প্রতি দিন সকালে খালি পেটে সাদা নয়ন তারা ফুল গাছের দু’টি পাতা বেটে রস খেলে এই রোগ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

চর্ম রোগ সারাতে নয়ন তারা –
নয়ন তারা বিভিন্ন চর্মরোগের জন্য অনেক উপকারী । এজন্য নয়ন তারা গাছের পাতার রস দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করলে ত্বকের বিবর্ণতা এবং ক্ষত খুব দ্রুত সেরে যায়।

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *