রোজ সকালে মেথি ভেজানো জল খান আর সমস্যা থেকে পান মুক্তি

মেথি- প্রাচীন কাল থেকেই শরীর সুস্থ রাখতে এটি একটি গুরুত্ব পূর্ণ উপাদান রূপে ব্যবহৃত হয়ে আসছে, পাশাপাশি রান্নার স্বাদ-গন্ধ বাড়াতেও মেথি কিন্তু অদ্বিতীয়। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র অনুযায়ী, মেথি জলে ভিজিয়ে খেলে শরীর ঠাণ্ডা থাকে। তবে শুধু শরীর ঠাণ্ডা রাখাই নয়, মেথির রয়েছে অন্যান্য উপকারিতাও।

১) রক্তে গ্লুকোজ ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে –
দেহে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে মেথি। এর অ্যামাইনো অ্যাসিড অগ্ন্যাশয়ে ইনসুলিন ক্ষরণে সহায়তা করে। এতে দেহে গ্লুকোজের পরিমাণ হ্রাস পায়। ফলে ডায়াবেটিসও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

২) কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ –
মেথি রক্তে উপস্থিত খারাপ কোলেস্টেরল থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে, মেথি ভেজানো জল আপনার হার্টে ফ্যাট জমতে দেয় না, রক্ত চলাচল ভালো হয়, হার্ট ভালো রাখে।

৩) লিভারকে সুরক্ষা প্রদান করে –
দীর্ঘদিন অ্যালকোহলে আসক্ত মানুষদের লিভারে চর্বি ও ফাইব্রোসিস – এর মতো সমস্যা দেখা দেয়, যা কোলাজেন সংশ্লেষণের দ্বারা নির্মূল করা যেতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে যে, মেথি লিভারে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এনজাইমগুলির ক্রিয়াকলাপ বাড়ায় এবং লিভারকে রক্ষা করতে সহায়তা করে।

৪) কোষ্ঠকাঠিন্য নির্মূল –
মেথির মধ্যে থাকা ফাইবার পেট পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। এতে দ্রুত হজম হয়।

৫) খুশকি দূর করতে –
বিশেষ করে শীতকালে চুলে প্রচুর খুশকির সমস্যা দেখা যায়। মাথার শুষ্ক ও মৃত ত্বক থেকে খুশকি হয়। সারা রাত মেথি জলে ভিজিয়ে রেখে তা বেটে পেস্ট তৈরি করুন। এতে ইচ্ছে হলে দই মেশাতে পারেন। এরপর এই মিশ্রণ মাথার ত্বকে লাগান। মিনিট তিরিশ মতো রেখে তা ধুয়ে ফেলুন। খুশকি চলে যাবে।

৬) ত্বকের তারুণ্য বজায় রাখে –
মেথিতে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন, ফাইবার, আয়রন, পটাসিয়াম, ভিটামিন সি ও নিয়াসিন। মেথির তৈরি ফেসপ্যাক ত্বককে রাখে সতেজ, টানটান, বার্ধক্যজনিত বলিরেখা কমিয়ে ত্বকের তারুণ্যকে দীর্ঘস্থায়ী করে।

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *