ঠাণ্ডা লাগা থেকে শুরু করে স্ট্রেস, মাইগ্রেন রিলিফ – সমস্যার সমাধান পেতে পান করুন তুলসী দুধ

তুলসীর পাতায় প্রচুর ঔষধি গুণাবলীর রয়েছে, যা ঠাণ্ডা লাগা, কাশি এবং সর্দি জাতীয় রোগ থেকে রক্ষা পেতে ব্যবহৃত হয়। তুলসী পাতা থেকে তৈরি চা এবং দুধকে খুব উপকারী বলে মনে করা হয়। শুধু ঠান্ডা লাগা বা সর্দি- কাশির মতো সমস্যা নয়, অন্যান্য ৫ টি বড় রোগ থেকেও এই দুধ/চা মুক্তি দেয়। আসুন আমরা আপনাদের বলি তুলসী পাতা দুধে সিদ্ধ করে পান করায় কোন ৫টি রোগ নিরাময় হয়?

কিডনিতে পাথর –
তুলসীর দুধ কিডনিতে পাথর রয়েছে এমন মানুষদের জন্য খুব উপকারী। আপনি যদি এই সমস্যায় পড়ে থাকেন তবে নিয়মিত খালি পেটে তুলসীর দুধ পান করুন। এটি কিডনিতে পাথর এবং ব্যথা উভয় সমস্যা থেকেই মুক্তি দেবে।

হাঁপানি 
আপনি যদি হাঁপানিতে আক্রান্ত হন তবে তুলসী পাতা দুধে সিদ্ধ করে পান করুন। দীর্ঘদিন পানে হাঁপানির সমস্যা চিরতরে চলে যায়।

মাইগ্রেন –
তুলসীর দুধ পান করলে মাথাব্যথা বা মাইগ্রেনের সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়া যায়। প্রতিদিন তুলসী পাতার দুধ খেলে এই সমস্যাটি মূল থেকে নির্মূল হয়।

স্ট্রেস রিলিফ –
আপনি যদি অত্যধিক চাপে থাকেন বা হতাশার মধ্যে থাকেন, তবে তুলসী পাতা দুধে সিদ্ধ করে তা পান করুন। এটি মানসিক চাপ এবং উদ্বেগ থেকে মুক্তি দেয়।

অনাক্রম্যতা 
অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টের বৈশিষ্ট্য তুলসী পাতায় পাওয়া যায়, তাই এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এ ছাড়া তুলসী পাতায় অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল এবং অ্যান্টিভাইরাল বৈশিষ্ট্যও রয়েছে, যা সর্দি, কাশির মতো সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।

কীভাবে তুলসীর দুধ খাবেন –
১) প্রথমে ৮ থেকে ১০ টি তুলসী পাতা দুধে রেখে সিদ্ধ করুন।

২) দুধ যখন এক গ্লাস মতো পরিমাণে আসবে, তখন গ্যাস বন্ধ করুন।

৩) সাধারণ তাপমাত্রায় এলে দুধ পান করুন।

এই দুধটি প্রতিদিন খেলে অনেক রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *