এই ৩ অবস্থায় কখনই কোনো সিন্ধান্ত নিবেন না

এই ৩ অবস্থায় কখনই কোনো সিন্ধান্ত নিবেন না

আমাদের প্রতিটি মানুষের জীবনে সিন্ধান্তের গুরুত্ব বলে শেষ করার মত নয়। সঠিক সিন্ধান্ত নেওয়া একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ দক্ষতা। আমরা যদি সঠিক সময়ে সঠিক সিন্ধান্ত নিতে পারি তবে অনেক অনাঙ্কাখিত ঘটনা এড়িয়ে যেতে পারব।

সিন্ধান্ত ভালো নিতে পারলে এর ফলাফল সব সময় ভালো হয়। তবে কিছু সময় রয়েছে যখন আমাদের কোনো ধরনের সিন্ধান্ত নেওয়া উচিত হবে না। আসুন জেনে নেই কোন ৩ অবস্থায় কখনই কোনো ধরনের সিন্ধান্ত নেওয়া উচিত নয়।

১। রাগান্বিত অবস্থায়

আমরা সবাই একটা প্রবাদের সঙ্গে পরিচিত, প্রবাদটি হচ্ছে “রেগে গেলেন তো হেরে গেলেন”। আমরা এই বাক্য মানি আর নাই মানি, রাগ কখনই কোনো ভাল সিন্ধান্ত দিতে পারে না।

রাগ এমন একটি মানসিক অবস্থা যা হতাশা ও অন্যান্য নেতিবাচকতা মনকে গ্রাস করে। রাগান্বিত অবস্থায় যখনই আপনি কোনো সিন্ধান্ত নিতে চাইবেন তখনই ভুল সিন্ধান্ত নেওয়ার সম্ভাবনা অনেক গুন বেশী থাকবে। তাই রাগান্বিত অবস্থায় কখনই কোনো ধরনের সিন্ধান্ত নিবেন না।

২। ক্লান্ত ও ক্ষুধার্ত অবস্থায়

ক্লান্ত ও ক্ষুধার্ত অবস্থায় আপনি নিজের মধ্যে থাকতে পারবেন না। ক্লান্ত ও ক্ষুধার্ত অবস্থায় কোনো কাজে মন বসানো যায় না। এমনকি তখন কারো সাথে কথাও বলতে মন চায় না।

যখনই আপনার অনেক বেশী ক্ষুধা লাগবে তখন আপনার ব্রেন চাপের মধ্যে থাকে। আপনি একটু খেয়াল করে দেখবেন আমাদের যখন ক্ষুধা লাগে তখন আমাদের মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়।

আর এই খিটখিটে মেজাজের সময় আমরা কোনো কিছু সহ্য করতে পারি না। তাই ক্লান্ত ও ক্ষুধার্ত অবস্থায় কোনো গুরুত্নপূর্ণ সিন্ধান্ত না নেওয়াই উত্তম।

৩। আবেগী অবস্থায়

আমাদের জন্য আবেগ কন্ট্রোল করা খুবই কঠিন একটি বিষয়। আমরা যখন কোনো বিষয় নিয়ে আবেগী হয়ে যাই তখন আমাদের হিতাহিত জ্ঞান লোপ পায়, তখন আমরা বাইরের জগৎটা কিছু সময়ের জন্য ভুলে যাই।

আর যখনই আপনি বাইরের জগৎ ভুলে গিয়ে সিন্ধান্ত নিবেন তখনই তা ভুল সিন্ধান্ত হয়ে যাবে। যে কোনো সিন্ধান্ত নেওয়ার আগে আমাদের কিছু মুহূর্ত ভেবে নিতে হবে।

প্রতিটি সিন্ধান্ত আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, তবে সিন্ধান্ত নিতে গিয়ে বেশী সময়ও নষ্ট করা উচিত হবে না।

About Mukshedul Hasan Obak

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *