পাখি রক্ষায় গাছে গাছে মাটির কলস

চুয়াডাঙ্গায় পাখি রক্ষায় গাছের ডালে ডালে ঝোলানো হচ্ছে পাখিদের ‘বাসা’। পাখির অভয়ারণ্য গড়তে সোমবার সকালে শহরের পুলিশ লাইনের সামনে থেকে গাছের ডালে কলস ও বাঁশের তৈরি বাসা বেঁধে দিয়ে এই কার্যক্রম শুরু করেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম।

পুলিশের বিচরণ যেখানে, পাখিদের অভয়ারণ্য সেখানে’ এ স্লোগানে পাখিদের বাসা গড়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়।

 জেলার পাঁচটি থানা, একটি ফাঁড়ি, ৩০টি ক্যাম্প ও ৩৯টি স্থাপনায় পাখিদের অবাধ বিচরণে পাঁচ হাজার মাটির কলস ও বাঁশের খুপড়ি বেঁধে দেওয়া হচ্ছে। যেখানে বাস করতে পারবে ২০-২৫ হাজার পাখি।

জেলা ট্রাফিক বিভাগের সার্জেন্ট মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বাস জানান, করোনাকালে মানুষ যখন গৃহবন্দী ছিল, তখন তিনি প্রতিবেলায় পাখিদের খাবার ব্যবস্থা করে দিতেন। এখনো তিনি পাখিদের সেই খাবার সরবরাহ করেন। তবে এবার পাখিদের নিরাপদ বাসস্থান গড়তে নিজ উদ্যোগে এ ধরনের কর্মকাণ্ড শুরু করা হয়েছে। 

পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ এখন অনেক মানবিক। শুধু আইনশৃঙ্খলা রক্ষার কাজে নয় বিভিন্ন সামাজিক কাজেও পুলিশের অংশগ্রহণ আশানুরূপ। সেই কাজের অংশ হিসেবে পশু পাখিদের বাসা তৈরির এ উদ্যোগ অবশ্যই সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। পুলিশ এখন শুধু জনতার নয়, প্রাণীদেরও।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কনক কুমার দাস, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর ফকরুল ইসলাম, শাহাব উদ্দীন ও মাহফুজ আহমেদ।

About Sagor Ahamed Milon

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *