সিউলে মহান বিজয় দিবস উদযাপন

সিউলের বাংলাদেশ দূতাবাসে যথাযোগ্য ভাবগাম্ভীর্য ও উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে শুধু দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অংশগ্রহণের মধ্যেই এ অনুষ্ঠান সীমাবদ্ধ রাখা হয়।

রাষ্ট্রদূত কর্তৃক দূতাবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে এ অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়।  এ সময় মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের বিদেহী আত্মার শান্তি, দেশের সমৃদ্ধি ও অগ্রযাত্রা  কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। 

দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার ভূতপূর্ব রাষ্ট্রদূতরা ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিভিন্ন শহরে নিযুক্ত বাংলাদেশের অনারারি কনসালদের শুভেচ্ছামূলক ভিডিও বার্তাও প্রদর্শন করা হয়। এরপর দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে একটি মুক্ত আলোচনার আয়োজন করা হয়। যেখানে আলোচকরা জাতির পিতার নেতৃত্ব, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগ এবং আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতির বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরেন। 

রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয়  চার নেতা,  মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহীদ এবং ২ লাখ বীরাঙ্গনার প্রতি  গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। সেই সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধে কূটনীতিবিদদের অবদানের কথাও শ্রদ্ধাসহ স্মরণ করেন। 

আলোচনা পর্ব শেষে দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অংশগ্রহণে একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে দেশাত্মবোধক  গান, নৃত্য ও কবিতা আবৃত্তি পরিবেশন করা হয়। সাংস্কৃতিক পর্বের পর বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী  খাবার আপ্যায়নের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

About Sagor Ahamed Milon

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *