বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ

বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে। সোমবার থেকে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে জীবন-জীবিকা বাঁচাও কমিটির ৫ দফা দাবি আদায়ে কর্মসূচি হাতে নেয়। যার ফলে সোমবার থেকে দুই দেশের আমদানি-রপ্তানি বন্ধ রয়েছে।

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চন্দ্র জানান, জীবন-জীবিকা বাঁচাও নামক একটি কমিটির আন্দোলনের কারণে সকাল থেকে বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি বন্ধ রয়েছে।

তাদের দাবিগুলো হলোর মধ্যে অবিলম্বে পূর্বের ন্যায় হ্যান্ড গুলি ও পরিবহন কুলিদের কাজের পরিবেশ ফিরিয়ে দিতে হবে, পূর্বের ন্যায় চালক ও সহকারীদের পায়ে হেঁটে পেট্রাপোল-বেনাপোল বন্দরের মধ্যে যাতায়াতের ব্যবস্থা করতে হবে, সাধারণ ব্যবসায়ী (মুদ্রা বিনিময় কারী, পরিবহন, ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং এজেন্ট, চালক সহকারী ও অন্যান্য এজেন্সি নিরাপত্তার নামে অত্যাচার বন্ধ করতে হবে, বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পণ্যবাহী গাড়িগুলিকে খালি করার ব্যবস্থা করতে হবে ও আধুনিকতার অজুহাতে শ্রমিকদের কর্মহীন করা চলবেনা। এসব দাবি আদায়ের সোমবার সকাল থেকে এ বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে বলে তিনি জানান।

বেনাপোল ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং এর স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান জানান, ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে শ্রমিকদের আন্দোলনের কারণে বেনাপোল বন্দর দিয়ে সকাল থেকে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে।

আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকার কারণে দু’দেশের বন্দর এলাকায় শত শত পণ্যবাহী ট্রাক আটকা পড়েছে। যার বেশির ভাগই বাংলাদেশের শতভাগ রপ্তানিমুখী গার্মেন্টস শিল্পের কাঁচামাল, ফল ও পচনশীল পণ্য রয়েছে। আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য সচল করতে ওপারে বৈঠক চলছে। বৈঠক ফলপ্রসূ হলে পুনরায় দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি চালু হবে।

About Sagor Ahamed Milon

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *