৩ মাস পর মুঠোফোন উদ্ধার করে শিক্ষার্থীকে ফেরত দিল পুলিশ

চট্টগ্রামে বেড়াতে গিয়ে হারিয়ে যাওয়া মুঠোফোন ৩ মাস পর উদ্ধার করে এক শিক্ষার্থীর কাছে ফেরত দিল বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ (বিএমপি)।

মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে নগরীর লুৎফর রহমান সড়কের উপ-কমিশনার কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ইনফ্রা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিপ বিল্ডিং বিভাগের ৭ম পর্বের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন খান শাওনের হাতে ফোন সেটটি তুলে দেন উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলম। 

এ সময় উত্তর অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. ফজলুল করিম এবং বিএমপি বিমান বন্দর থানার এএসআই মো. বারেক হোসেন সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।উপ-কমিশনার মো. খাইরুল আলম জানান, নগরীর ইনফ্রা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শিপ বিল্ডিং বিভাগের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন খান শাওন ৪ অক্টোবর বন্ধুদের সাথে বরিশাল থেকে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার, রাঙ্গামাটির সাজেক, বান্দরবান এবং সেন্টমার্টিন বেড়াতে যান।

সফরের প্রথম দিন চট্টগ্রাম অক্সিজেন মোড়ে তার সাথে থাকা মুঠোফোনটি হারিয়ে যায়। ফোন সেট হারিয়ে যাওয়ায় প্রথম দিনেই আনন্দ ভ্রমণ নিরানন্দে পরিণত হয় শাওনের। বরিশাল ফিরে বিষয়টি মেট্রো পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলমকে জানান। তার নির্দেশে বরিশাল মেট্রোপলিটনের বিমানবন্দর থানার এএসআই মো. বারেক হোসেন হারিয়ে যাওয়া মুঠোফোন উদ্ধারের নির্দেশ দেন।

পরে এএসআই বারেক তথ্য প্রযুক্তি এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটনের ডবল মুরিং থানা পুলিশের সহায়তায় গত ২১ নভেম্বর কদমতলীর ব্যবসায়ী আক্তার হোসেনের কাছ থেকে মুঠোফোনটি উদ্ধার করেন। তবে ওই ব্যবসায়ী যার কাছ থেকে ফোন সেটটি ক্রয় করেছেন তাকে শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।

হারিয়ে যাওয়া মুঠোফোন ৩ মাস পর হাতে পেয়ে আবেগাপ্লুত শিক্ষার্থী শাওন। তিনি বলেন, হারিয়ে যাওয়া ফোন সেটটি ফিরে পাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। পুলিশের আন্তরিকতার কারনে ফোন সেটটি ফিরে পেয়েছেন। তিনি পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

বিএমপি’র উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলম বলেন, তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশ পুলিশ অনেক এগিয়ে। অপরাধীর চেয়ে পুলিশ অনেক শক্তিশালী। কেউ অপরাধ করে পার পাবে না।

About Sagor Ahamed Milon

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *