নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হাজ্বী মোহাম্মদ মহসীন আহামেদ

সাগর আহামেদ মিলন:

সারাদেশের ন্যায় শ্রীপুরে ও বইছে মাঝারী ধরণের শৈত্য প্রবাহ। আর এই শীতের মাঝেই বিশেষ করে সন্ধ্যার দিকে পৌর এলাকার দোকানগুলোতে উত্তপ্ত চায়ের কাপের সঙ্গে বইছে নির্বাচনের হাওয়া।

এক কথায় বলতে গেলে- কনকনে এই শীতের মধ্যে চারদিকেই ছড়াচ্ছে ভোটের উত্তাপ।যতই কাছাকাছি চলে আসছে শ্রীপুরে পৌর নির্বাচন ততোই বাড়ছে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা।আসন্ন শ্রীপুর পৌর সভার নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটারদের দাঁড়ে দাঁড়ে যাচ্ছেন প্রার্থীরা।

শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৭নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রাথী, পৌর যুবলীগের সহ সভাপতি হাজ্বী মোহাম্মদ মহসীন আহামেদ এর বিজয়ী হওয়ার লক্ষ্যে চলছে উৎসব মুখর নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। প্রতি পাড়া মহল্লা দোকানপাট বাড়ি বাড়ি গিয়ে কড়া নাড়ছেন তিনি।এবং ভোটারদের বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন, তরুণ এই কাউন্সিলর প্রার্থী হাজ্বী মোহাম্মদ মহসীন আহামেদ ।এসময় তার সাথে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন এলাকার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ।

এলাকাবাসী জানান,দীর্ঘদিন ধরে এলাকার অসহায়, গরিব ও অবহেলিত মানুষদের নিয়ে কাজ করছেন সে। এমনকি তাদের আর্থিকভাবে সহযোগিতাসহ নানা সমস্যা সমাধানে পাশে ছিলেন হাজ্বী মোহাম্মদ মহসীন আহামেদ। এলাকার মানুষের উপকার করা ও অসহায় মানুষদের সঠিক সেবা প্রদান করাই তার অভ্যাসে পরিনত হয়ে গেছে।

তারা আরও জানান ,আমাদের এলাকায় এমন কিছু রাস্তা ছিল যা সামান্য বৃষ্টি হলেই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে যেত। মহসিন আহামেদ এইসব রাস্তাগুলো সে তার নিজের টাকা দিয়ে মেরামত করে দিয়েছেন।

নির্বাচনের প্রার্থী হিসেবে এলাকার জনগণ তাকে কীভাবে দেখেন ও এলাকার মানুষের কাছে তার গ্রহণযোগ্যতা কতটুকু? এমন প্রশ্নের জবাবে হাজ্বী মোহাম্মদ মহসীন আহামেদ জানান, এলাকার মানুষের কাছে আমার গ্রহণযোগ্যতার প্রমাণ হবে ভোটের মাধ্যমে। এলাকার মুরব্বি ও সাধারণ জনগণের সমর্থনেই আমি নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি। আমার মার্কা পাঞ্জাবী ।তিনি আরও বলেন ,পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে জয়যুক্ত হলে এলাকার মানুষের সেবা করে যাব।

ভোটারদের উদ্দেশ্য করে বলেন ১৬ জানুয়ারী সারাদিন সবাই পাঞ্জাবী মার্কায় ভোট দিয়ে আমাকে জয়যুক্ত করে সবার পাশে থাকার সুযোগ করে দিবেন ।

About Sagor Ahamed Milon

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *